Business is booming.

বৃষ্টি অব্যাহত, রাজধানীতে ব্যাপক ভোগান্তি

102

রবিবার দিবাগত মধ্যরাত থেকেই শুরু হয় বৃষ্টিপাত। রাতে হালকা বৃষ্টিপাত হলেও সোমবার ভোর থেকে শুরু হয় মুষলধারে বৃষ্টি। এতে রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। ফলে বহু এলাকায় পথচারীদের পড়তে হয় চরম দুর্ভোগে।

এখনও অব্যাহত সেই বৃষ্টি। মঙ্গলবারও সকাল থেকে টানা বর্ষণে ফের তলিয়ে গেছে রাজধানী ঢাকার বেশকিছু অংশ। এতে আবারও ভোগান্তিতে পড়েছে নগরবাসী।

এদিন সকালেই আকাশ কালো মেঘে যেন সন্ধ্যা নেমে আসে। হালকা বৃষ্টির পর একপর্যায়ে শুরু হয় মুষলধারে বৃষ্টি। পরে ভারী বর্ষণ থামলেও থেমে থেমে বৃষ্টি ঝরছে।

কয়েক মিনিটের ভারী বর্ষণেই বেশকিছু এলাকায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। ডুবে যায় রাস্তাঘাট। এতে বিশেষ করে বিপাকে পড়েন অফিসমুখো নগরবাসী।

রাজধানীতে সোমবার সকাল ৬টা থেকে ৯টা পর্যন্ত ৬৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়। এতে রাজধানীর প্রধান সড়ক থেকে শুরু করে অলিগলির রাস্তাগুলোও পানিতে তলিয়ে যায়। কোথাও হাঁটুপানি আবার কোথাও কোমরপানি জমে থাকে দিনভর।

কিছু কিছু এলাকায় রাস্তার পানি উপচে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও বাসাবাড়িতে উঠে পড়ে। আবার ছোট যানবাহনে পানি প্রবেশ করে বিকল হয়ে যাওয়ার ঘটনাও ঘটে।

সোমবারের বৃষ্টিতে রাজধানীর নিউ মার্কেট, রাজারবাগ, মতিঝিল, গ্রিনরোড, মিরপুর-১০ নম্বর গোলচক্কর, শেওড়াপাড়া, কাজীপাড়া, আগারগাঁও, বিজয় সরণি, কলাবাগান ও আসাদগেট, শান্তিনগর, মৌচাক ও কাকরাইল, হাজারীবাগ, কারওয়ানবাজার, পান্থপথ, ধানম-ি-১৫, মোহাম্মদপুর, আরামবাগ, খিলগাঁও, পুরান ঢাকার শহীদনগর, নাজিমউদ্দিন রোড, জুরাইন, ইব্রাহীমপুর এলাকায় জলাবদ্ধতা দেখা দেয়।

এসব এলাকার বেশিরভাগ সড়কে সারাদিনই পানি জমে থাকে। সড়কের পানি উপচে গিয়ে বাসাবাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে উঠেছে।

এদিকে আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, মঙ্গলবার সকাল ৬টা পর্যন্ত পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় ঢাকায় ৮৭ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে।

বৃষ্টিপাতের এ পরিমাণ স্বাভাবিকের তুলনায় বেশি বলেও জানায় আবহাওয়া অধিদফতর।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.